১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ দুপুর ১:৩০
সর্বশেষ সংবাদ
পাগলায় ফেসবুক বন্ধুদের অর্থায়নে লেপ পেল ৮০ পরিবার পশ্চিম পাগলা ইউপি পরিষদের দায়িত্ব হস্তান্তর ও গ্রহণ শান্তিগঞ্জে ভোক্তার অভিযান, ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা শান্তিগঞ্জের জামলাবাজে নতুন বই পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীরা বন্ধন রক্তদান সংগঠনের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন যুক্তরাজ্য প্রবাসী এহসান মির্জার ইংরেজি নববর্ষের শুভেচ্ছা বিনিময় শান্তিগঞ্জে নিরীহ পরিবারের জায়গায় প্রভাবশালীর জোরপূর্বক মাটি ভরাট পাগলা বাজারে হাই চয়েজে অগ্নিকান্ড, স্বপ্ন পুড়ল আক্তারের পাথারিয়া বাজারে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, জরিমানা  রাইজিং সান কিন্ডার গার্টেনের বার্ষিক পরীক্ষার ফলপ্রকাশ

শান্তিগঞ্জে নিরীহ পরিবারের জায়গায় প্রভাবশালীর জোরপূর্বক মাটি ভরাট

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৯৫ Time View
নিজস্ব প্রতিবেদক : শান্তিগঞ্জে প্রভাবশালী কর্তৃক নিরীহ পরিবারের পৈতৃক সম্পত্তিতে মাটি ভরাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের আস্তমা গ্রামে। পৈত্রিক সম্পত্তিতে জোর পূর্বক মাটি ভরাটের বিষয়ে আস্তমা গ্রামের মৃত ওয়াজিদ উল্লাহর ছেলে ইউসুফ আলী বাদী হয়ে গত ২১ ডিসেম্বর শান্তিগঞ্জ থানায় ও ২৩ ডিসেম্ভর মৃত চেরাগ আলীর ছেলে আব্দুল আহাদ বাদী হয়ে সুনামগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগসূত্রে এবং সরেজমিনে শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে গিয়ে জানা যায় শান্তিগঞ্জ উপজেলাধীন চেচারকোনা মৌজাস্থিত ২০৭ নং জেএলস্থিত ১৭৭ নং খতিয়ানভূক্ত ৬৫০ দাগে ১৫ শতক জায়গা অভিযোগকারীর পৈতৃক সম্পত্তি। পিতার মৃত্যুর পর তারা ভোগদখলে করে আসছে। ঘটনার দিন সকাল ১০ টার দিকে জোরপূর্বক একই গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে সেবুল মিয়া, মৃত আবারক আলীর ছেলে মজিল মিয়া, আতাউর রহমান সহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন সংঘবদ্ধ হয়ে তফশিলে বর্ণিত যথা জায়গায় মাটি ভরাট শুরু করে। এসময় অভিযোগকারী বাঁধা দিলে তাকে দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে প্রাণে মারার ভয় দেখীয় মাটি ভরাট করে প্রভাবশালীরা।
সরেজমিন ঘটনাস্থলে গেলে অভিযোগকারী ইউসুফ আলী তাঁর পরিবারের লোকজন জানান, আমরা গরীব অসহায় হতদরিদ্র। এই জমিটুকু ছাড়া আমাদের আর কোন জমি নেই। থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ৪ বার ঘটনাস্থলে এসে নিষেধ করে আসলেও বিবাদীগন কর্ণপাত না করায় আমি বিজ্ঞ আদালতের সরনাপন্ন হই। বিজ্ঞ আদালত উক্ত জায়গায় ১৪৪ জারী করে করে র্বিবাদীগনকে থানা ও সহকারি কমিশনার কর্তৃক বারিত করার পর ও তারা জোরপূর্বক মাটি ভরাট অব্যাহত রেখেছে। এ ব্যাপারে আমরা প্রধানমন্ত্রী, দেশবাসী সহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।
এব্যাপারে অভিযুক্ত সেবুল মিয়া জানান, আমরা এই জায়গার দখলে আছি। আমাদের কোন কাগজাদি নেই।
এব্যাপারে শান্তিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি কাজী মুক্তাদীর হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে মাটি ভরাট করতে নিষেধ করেছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের অন্যান্য সংবাদ
Developed by PAPRHI
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo