১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:৫৭
ব্রেকিংনিউজ
দ. সুনামগঞ্জে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ, দুলাভাইর হাতে শ্যালক খুন দ. সুনামগঞ্জে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা রাসেল বক্সের পিতার মৃত্যুতে আনছার উদ্দিনের শোক প্রকাশ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক প্রচার ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন: ওবায়দুল কাদের সুনামগঞ্জের কৃষি বিভাগের শুভংকরের ফাঁকি অসময়ে ধান কাঁটার তেলেসমাতি বিডি ফিজিশিয়ানের উদ্যোগে বৈজ্ঞানিক সেমিনার ও চিকিৎসা গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন হরতাল : দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হেফাজতের পিকেটিং দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ দ. সুনামগঞ্জে নানা আয়োজনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

পরিকল্পনামন্ত্রীর অবদান : ভবন পাচ্ছে ৬ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

মহাসিং ডেস্ক
  • আপডেট : শুক্রবার, ২৮ আগস্ট, ২০২০
  • ৪৫০ বার পঠিত

নোহান আরেফিন নেওয়াজ : একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ডে সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর) সংসদীয় আসনের রুপরেখায় আমুল পরিবর্তন এনে নির্বাচনী এই আসনের সর্বস্তরের মানুষের মনে একজন উন্নয়নমুখী জননেতা হিসেবে অনেক আগেই গ্রহনযোগ্যতা অর্জন করেছেন বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ মান্নান। শুধু নিজ সংসদীয় আসনই নয় পুরো জেলাব্যাপী তিনি উন্নয়নমুখী নেতা হিসেবে সমাদৃত । রাস্তাঘাট নির্মান, ব্যয়বহুল ব্রিজ নির্মান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট, ফায়ার সার্ভিস ক্যাম্প স্থাপন, বিদ্যুতের চাহিদা পুরণ, স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশনের ব্যবস্থাকরণ, বিশুদ্ধ পানির চাহিদা পুরণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ ও বহুতল ভবন নির্মান সহ অসংখ্য বড় বাজেটের নির্মান কাজ ভাগিয়ে এনে পুরো জেলায় তিনি ‘হাওররত্ন’ উপাধিতে ভূষিত।

পরিকল্পনামন্ত্রীর এমন উন্নয়নমুখী কাজের প্রশংসায় দলমত নির্বিশেষে সবাই যেনো একাট্টা। মন্ত্রীর এতো সব উন্নয়নমুখী কর্মকান্ডে মুগ্ধ হয়ে কেউ কেউ এই জননেতাকে ‘ম্যাজিকম্যান’ বলে ও আখ্যায়িত করে থাকেন।

এবার মন্ত্রীর অবদানে শিক্ষাক্ষেত্রে আরেকধাপ উন্নয়নের ছোঁয়া পেতে যাচ্ছে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও জগন্নাথপুর উপজেলার ৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান । এরমধ্যে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ৩ টি এবং জগন্নাথপুর উপজেলার ৩ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অন্তর্ভূক্ত।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ৩ টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, পূর্ব পাগলা উচ্চ বিদ্যালয়, ঈশাকপুর-শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় এবং সলফ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এছাড়া জগন্নাথপুর উপজেলার ৩ টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, পাইলগাঁও বিএন উচ্চ বিদ্যালয়, পঞ্চগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় এবং সফাত উল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়। এসব প্রতিষ্ঠানে একটি করে বন্যার্তদের আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে বলে জানা যায়।

জানা যায়, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর থেকে ৪টি ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর থেকে ‘হাওরের শিক্ষা অবকাঠামো উন্নয়ন’ প্রকল্পের আওতাধানী ২টি সহ মোট ৬ টি ভবনের অনুমোদন করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়। এইসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৬ টি ভবনের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ২২ কোটি টাকা।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া জানান, চলতি বছরের ৫ ই সেপ্টেম্বর দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও জগন্নাথপুরে দু’টি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয়। মাসখানেকের মধ্যে টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাকি কাজও বাস্তবায়ন করা হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রীর ব্যক্তিগত রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসাইন বলেন, সুনামগঞ্জ -৩ আসন সহ জেলাব্যাপী পরিকল্পনামন্ত্রীর উন্নয়ন কার্যক্রম প্রতিয়মান যার সুফল জেলাবাসী ভোগ করছেন। তিনি আরও বলেন, শুধু সুনামগঞ্জ -৩ আসনই নয় মন্ত্রী মহোদয়ের উন্নয়নে হাওরিয়া এই জেলা একটি মডেল জেলায় রুপান্তরিত হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ

© All rights reserved ©2020 mahasingh24.com Developed by PAPRHI.XYZ
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo