১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ১১:৩১
ব্রেকিংনিউজ
দ. সুনামগঞ্জে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ, দুলাভাইর হাতে শ্যালক খুন দ. সুনামগঞ্জে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা রাসেল বক্সের পিতার মৃত্যুতে আনছার উদ্দিনের শোক প্রকাশ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক প্রচার ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন: ওবায়দুল কাদের সুনামগঞ্জের কৃষি বিভাগের শুভংকরের ফাঁকি অসময়ে ধান কাঁটার তেলেসমাতি বিডি ফিজিশিয়ানের উদ্যোগে বৈজ্ঞানিক সেমিনার ও চিকিৎসা গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন হরতাল : দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হেফাজতের পিকেটিং দক্ষিণ সুনামগঞ্জে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ দ. সুনামগঞ্জে নানা আয়োজনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

দিরাইয়ে ১২ পরিবারকে বাড়ি ছাড়া করার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১৪ বার পঠিত

ক্রাইম রির্পোটারঃ
সুনামগঞ্জে দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নের কামালপুর গ্রামের ১২ টি পরিবারের অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ-শিশু স্থানীয় এক বিএনপি নেতার অত্যাচারে বাড়ি ছাড়া হয়েছেন, এমন অভিযোগ করেছেন ভোক্তভোগীরা।

পূর্ববিরোধের জেরে প্রবাভশালী এই নেতার ভয়ে গত এক সপ্তাহ ধরে ঘরবাড়ি ছেড়ে পাশ্ববর্তী মধুরাপুর গ্রামে আশ্রয় নিয়েছেন তারা। শিশুসন্তান, বয়োবৃদ্ধ নারী-পুরুষ নিয়ে যাযাবরের মতো মানেবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে তাদের। এই সুযোগে বাড়িছাড়া ১২টি পরিবারের বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে দিরাই উপজেলা বিএনপির নেতা কামালপুর গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে আব্দুল খালেক ও তাঁর অনুসারিদের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো দিরাই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও এখন পর্যন্ত এজাহার এফআইআরভুক্ত হয়নি। ফলে জীবন সম্পদ নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন ১২টি পরিবারের অর্ধতশাধিক সদস্য।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বিএনপি নেতা আব্দুল খালেক ও তার অনুসারীদের দ্বারা অত্যাচারিত হয়ে কামালপুর গ্রামের আবুল খয়ের, তমিজ উল্লাহ, বসির মিয়া, মাওলানা মনির, সোলেমান, আহাদ নূর, জেহেদ নূর, শামছুন নূর, আসান উল্লাহ, ফয়জুননূর, মামুন আলী পরিবার পরিজন নিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন পার্শ্ববর্তী মধুরাপুর গ্রামে। জীবনের নিরাপত্তা ও প্রতিপক্ষের দ্বারা লুটে নেওয়া মালামাল ফেরত চেয়ে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো স্মরণাপন্ন হয়েছে পুলিশের।

সরেজমিন কামালপুর গ্রামে গিয়ে ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, কামালপুর গ্রামে একক আধিপত্য বিস্তার করতে চাইছিলেন বিএনপি নেতা আব্দুল খালেক। কিন্তু ওই ১২টি পরিবার তার অনুগত না হওয়ায় তাদের উপর ক্ষেপে যান খালেক। নানা ইস্যূতে মামলা-হামলা দিয়ে বশে আনতে ব্যর্থ হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে খালেকের অনুসারীরা প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা চালায়। হামলা থেকে বাঁচতে ১২টি পরিবারের অর্ধশতাধিক লোক আশ্রয় নেন পাশ্ববর্তী মধুরাপুর গ্রামে। হামলার সময় প্রতিপক্ষের ঘরবাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর চালায় খালেক অনুসারীরা।

তারা ১২টি পরিবারের অনেকগুলো ঘরের দরজা-জানালা, আসবাবপত্র, টিনের বেড়া, সৌর বিদ্যুৎ সিস্টেম, বৈদ্যুতিক মিটার ভাংচুর করে। এসময় ৫টি টিউবওয়েল উপড়ে লুট করে নিয়ে যায় প্রতিপক্ষের লোকজন।

ক্ষতিগ্রস্ত সুলেমানের স্ত্রী সালেহা, ফয়জননূরের স্ত্রী শিরিয়া বেগম , বশির আহমদ, মামুন আলী, সুলেমান মিয়া জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে প্রাণ ভয়ে ঘরবাড়ি ছাড়া রয়েছেন। ছোট ছোট বাচ্চা, বয়স্ক মানুষ নিয়ে গ্রামে গ্রামে মানুষের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। প্রতিপক্ষের লোকেরা তাদের সবকিছু লুট করে নিয়ে গেছে। তাদের হুমকি ধামকির ভয়ে বাড়িতে যেতে পারছেন না তারা। এ ব্যাপারে পুলিশী নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।

দিরাই উপজেলা বিএনপির সদস্য আব্দুল খালেক বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ বানোয়াট। এদেরকে কেউ অত্যাচার করেনি। তারা স্বেচ্ছায় বাড়ি ছাড়া রয়েছে। বরং তারা আমার মানুষের উপর অত্যাচার করছে।

বাড়িঘরে লুটপাটের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমরা লুটপাট করিনি। তারা নিজেরাই মালামাল সরিয়ে নিয়েছে। পুলিশ কিছু মাল উদ্ধার করেছে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলম বলেন, এ বিষয়ে ভোক্তভোগীদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিরিখে তদন্ত সাপেক্ষে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ

© All rights reserved ©2020 mahasingh24.com Developed by PAPRHI.XYZ
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo