২৬শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ রাত ২:০২
ব্রেকিংনিউজ
সাংবাদিক হোসাইনের পিতার ইন্তেকাল, প্রেসক্লাবসহ সুধীজনদের শোকপ্রকাশ কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ-সভাপতি আনছার উদ্দিনের ঈদ শুভেচ্ছা ঈদে শপিং করে ফেরার পথে স্পিডবোট ডুবে মা-মেয়ের মৃত্যু পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নূর কালামের ঈদ শুভেচ্ছা পূর্ব বীরগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শহীদুর রহমান শহিদের ঈদ শুভেচ্ছা দ. সুনামগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক সুহেল মিয়ার ঈদ শুভেচ্ছা দ. সুনামগঞ্জ মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি ও আফাজল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ডা. শাকিল মুরাদ আফজলের ঈদ শুভেচ্ছা আফজল ফাউন্ডেশন যাকাতের শাড়ি পেলেন ৯০ জন দুঃস্থ নারী যুক্তরাজ্য প্রবাসী এহসান মির্জার ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা বিনিময় ফ্রান্স প্রবাসী ক্রিড়াবিদ আতিকুর রহমানের ঈদ শুভেচ্ছা

ছিন্নমুল বেদে সম্প্রদায়ের বাড়িতে শীতবস্ত্র নিয়ে ‘দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নির্মান শ্রমিক ইউনিয়ন পুঞ্জ’

নিজস্ব প্রতিনিধি::
  • আপডেট : শুক্রবার, ১ জানুয়ারি, ২০২১
  • ১৩২ বার পঠিত

৪ শতাধিক শীতবস্ত্র বিতরণের ৩ দিন পর এবার ছিন্নমুল বেদে সম্প্রদায়ের বাড়িতে শীতবস্ত্র বহন করে পৌঁছে দিলেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নির্মান শ্রমিক ইউনিয়ন পুঞ্জের নেতৃবৃন্দ।

ইংরেজী নববর্ষ ২০২১ সালের প্রথম দিন (শুক্রবার) বিকাল ৫ টায় উপজেলার পাগলা বাজার ব্রিজ সংলগ্ন ২০ টি গৃহহীন ছিন্নমুল বেদে পরিবারের মাঝে এই শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

ভিটে-বাড়ি ছাড়া ছিন্নমুল এসব পরিবারের হাতে শীতবস্ত্র তুলে দেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নির্মান শ্রমিক ইউনিয়ন পুঞ্জের সভাপতি রহমত আলী, সাধারণ সম্পাদক নিকুঞ্জ সুত্রধর, সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক মিয়া, নির্বাহী সদস্য আহমদ আলী, নিশি সুত্রধর, সদস্য আলী আহমদ, আরব আলী ও সেলিম মিয়া প্রমুখ।

সংগঠনের সভাপতি রহমত আলী বলেন, তীব্র এই শীতে অসহায় ছিন্নমুল এই সম্প্রদায়ের মানুষের দুর্ভোগের বিষয়টি অনুমান করতে পেরে তাদের বাড়িতে ছুটে যাই। তখন তারা তাদের দুর্ভোগের ব্যাপারে আমাদের জানান। ফলে আজ অসহায় এই ২০ টি পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র তুলে দিতে পেরে ভালো লাগছে।


শীতবস্ত্র হাতে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা ছইল মিয়া ও রাসেল মিয়া বলেন, নির্মান শ্রমিক ইউনিয়ন পুঞ্জের সবার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ । শুধু এই শীতবস্ত্রের জন্য নয় আমাদের প্রতি তাদের ভালোবাসা দেখে আমরা খুশিতে আত্মহারা। আমরা ভিটে-বাড়ি ছাড়া ছিন্নমুল মানুষ। দীর্ঘ বছর ধরে এই এলাকায় বসবাস করে আসছি। এমনকি এই এলাকার ভোটার ও আমরা। তবে সরকারী-বেসরকারী কোনো ধরনের সহায়তা আমরা পাই না। কিন্তু এই সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আমাদের কষ্ট বুঝতে পেরে আমাদের বাড়িতে এসেছেন, খোঁজ নিয়েছেন, শীতবস্ত্র তুলে দিয়েছেন এর চেয়ে বড় পাওয়ার আর কিছু নেই।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ধরনের আরও সংবাদ

© All rights reserved ©2020 mahasingh24.com Developed by PAPRHI.XYZ
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo