২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ বিকাল ৪:৫৪
সর্বশেষ সংবাদ
ওমিক্রন : শান্তিগঞ্জে দক্ষিণ আফ্রিকা ফেরত প্রবাসীর বাড়িতে লাল নিশানা যুক্তরাজ্য থেকে ব্যারিস্টার ডিগ্রি অর্জন করেছেন আব্দুর রাকিব দৈনিক বায়ান্ন পত্রিকায় সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি নিয়োগ পেলেন কাজী জমিরুল ইসলাম মমতাজ মাত্র ৮৮৩ ভোট পেলেন নৌকার প্রার্থী দেবাংশু পশ্চিম পাগলায় শ্বাসরুদ্ধকর নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জগলুল হায়দার বিজয়ী শান্তিগঞ্জের ৮ ইউপিতে বিজয়ী-বিজিতরা কে পেলেন কত ভোট? শান্তিগঞ্জে আ. লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সুজন বহিষ্কার মেয়ে শিশুদের শিক্ষায় ৫৪ মিলিয়ন পাউন্ডের বৃহৎ প্রকল্প গ্রহন করেছে বৃটিশ সরকার  সুনামগঞ্জের হাওরে হচ্ছে উড়াল সড়ক দোয়ারাবাজারে পুকুরে ডুবে দুই ভাইয়ের মৃত্যু   

তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ মিছিল ও মানববন্ধন 

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৭১ Time View
তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদী থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ ও শ্রমিকদের কর্মসংস্থান বন্ধ করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার অভিযোগে উপজেলা পরিষদ  চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে
শুক্রবার দুপুর ১১ টায় তাহিপুর খেলার মাঠে যাদুকাটা বালু ব্যবসায়ী ও শ্রমিক সংঘের ব্যানারে টই প্রতিবাদ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল থেকেই থানা ঘাট এলাকায় প্রায় শতাধিক নৌকা যোগে বিভিন্ন স্থান থেকে ঝাড়ু ও জুতা হাতে শ্রমিকরা সমবেত হন। থানা ঘাট এলাকার সেতু  থেকে  একটি মিছিল বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন মাঠে মানববন্ধনে মিলিত হন তারা। প্রতিবাদ মিছিলে শ্রমিকরা উপজেলা চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী  বাবুলের অপসারণ ও মিছিলে ঝাড়ু ও জুতা প্রদর্শন করেন এবং বিভিন্ন স্লোগান দেন।
মানববন্ধনে  উপজেলার বিন্নাকুলি গ্রামের বালু শ্রমিক আব্দুল আলী বলেন,  আমরা শ্রমিক মানুষ। গরীব মানুষ।  দিন আনি দিন খাই, একদিন কাম না থাকলে খাইতাম পাই না।   নদী থাকি বালু তুললে আমরা ঘরের চুলা জ্বলে কিন্তু উপজেলা চেয়ারম্যানরে অবৈধ টাকা না দেয়ায় বেটায় হাইকোর্ট গিয়া মামলা দিসে আমরা নৌকা আটকাইছে, প্রতি নৌকা ছুটানির লাগি ১ লাখ টাকা লাগছে ইতা টাকা আমরা কই থকি পাইতাম।
 বালু শ্রমিক মিজান আহমেদ বলেন, এই অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের সংসার চলে নদীতে কাজ কইরা। এইখানে সবাই গরীব সবাই শ্রমিক। নদী বন্ধ হইলে শ্রমিকরা পেটে লাতি পরে। ঘরের সবে উপাস থাকা লাগে।  উপজেলা চেয়ারম্যানরে শ্রমিকরা কোন সুযোগ সুবিধা দিসে না করিয়া তাইন আমরারে বিজিবি পুলিশ দিয়া নৌকা আটকাইন আর তাইন মামলা দিসোইন আমরা বলে নদীর পাড় কাটিয়া বালু তুলি যা মিথ্যা আমরা বালু নদী থাকি, যাদুকাটার বালু দেশের এক নাম্বার বালু ইটাত তাইনের চোখ পড়ছে, আমরা চাই দ্রুতই সরকার এ চেয়ারম্যানকে অপসারণ করুক।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের অন্যান্য সংবাদ
Developed by PAPRHI
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo